প্রেম ও ভালোবাসা নিয়ে জীবনানন্দ দাশের সেরা ১০ বাণী

Rate this post

জীবনানন্দ দাশ ছিলেন বিংশ শতাব্দীর অন্যতম প্রধান আধুনিক বাঙালি কবি, লেখক ও প্রাবন্ধিক। জীবনানন্দ দাশ গ্রামবাংলার ঐতিহ্যময় নিসর্গ ও রূপকথা চিত্রায়িত করার কারণে ‘রূপসী বাংলার কবি’ হিসেবে খ্যাতি লাভ করেন। অনেক কবি সাহিত্যিক ও সমালোচক তাঁকে রবীন্দ্রনাথ ও নজরুল-পরবর্তী বাংলা সাহিত্যের প্রধান কবি বলে মনে করেন।আজকে আমরা এই রূপসী বাংলার কবি খ্যাত জীবনানন্দ দাসের বিখ্যাত কিছু উক্তির সাথে পরিচিত হব।

জীবনানন্দ দাশের বাণী

বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের সেরা বাণীর তালিকা

প্রেম ও ভালোবাসা নিয়ে জীবনানন্দ দাশের সেরা বাণীর তালিকা

১. “শেষবার তার সাথে যখন হয়েছে দেখা মাঠের উপরে
বলিলাম: ‘একদিন এমন সময়
আবার আসিয়ো তুমি, আসিবার ইচ্ছা যদি হয়!–
পঁচিশ বছর পরে!”

২. “আরম্ভ হয় না কিছু — সমস্তের তবু শেষ হয় —
কীট যে ব্যর্থতা জানে পৃথিবীর ধুলো মাটি ঘাসে
তারও বড় ব্যর্থতার সাথে রোজ হয় পরিচয়!
যা হয়েছে শেষ হয়; শেষ হয় কোনোদিন যা হবার নয়!”

৩. “যে জীবন ফড়িংয়ের দোয়েলের – মানুষের সাথে তার হয় নাকো দেখা”

৪. “জ্ঞান হোক প্রেম
-প্রেম শোকাবহ জ্ঞান
হৃদয়ে ধারণ ক’রে সমাজের প্রাণ
অধিক উজ্জ্বল অর্থে
করে নিক অশোক আলোক।”

৫. “হে পৃথিবী,
হে বিপাশামদির নাগপাশ, – তুমি
পাশ ফিরে শোও,
কোনোদিন কিছু খুঁজে পাবে না আর”।

৬. “সারাটি রাত্রি তারাটির সাথে তারাটিরই হয় কথা,
আমাদের মুখ সারাটি রাত্রি মাটির বুকের ‘পরে!”

৭. “যে-পৃথিবী জেগে আছে, তার ঘাস—আকাশ তোমার।
জীবনের স্বাদ ল’য়ে জেগে আছো, তবুও মৃত্যুর ব্যথা দিতে পারো তুমি;

৮. “জীবন গিয়েছে চলে আমাদের কুড়ি কুড়ি বছরের পার-
তখন আবার যদি দেখা হয় তোমার আমার!

৯. “আমরা যাইনি ম’রে আজো— তবু কেবলি দৃশ্যের জন্ম হয়:
মহীনের ঘোড়াগুলো ঘাস খায় কার্তিকের জ্যোৎস্নার প্রান্তরে,”

১০. “চোখে তার যেন শত শতাব্দীর নীল অন্ধকার!
স্তন তার করুণ শঙ্খের মতো–দুধে আর্দ্র-কবেকার শঙ্খিনীমালার!”

১১. “মনে হয় শুধু আমি, আর শুধু তুমি
আর ঐ আকাশের পউষ-নীরবতা
রাত্রির নির্জনযাত্রী তারকার কানে কানে কত কাল
কহিয়াছি আধো আধো কথা!”

১২. “তোমার পাখনায় আমার পালক, আমার পাখনায় তোমার রক্তের স্পন্দন”

See also  সক্রেটিসের সেরা ১০ বাণী

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.